• <div id="fb-root"></div>
    <script async defer crossorigin="anonymous" src="https://connect.facebook.net/en_GB/sdk.js#xfbml=1&version=v4.0&appId=540142279515364&autoLogAppEvents=1"></script>
  • শিরোনাম

    দেশের মাটিতে পা রাখলেন ‘বিশ্বজয়ী’ বীর টাইগাররা

    | ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১:১০ অপরাহ্ণ

    বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট দল বিশ্বকাপ জয়ে অভিনন্দনের জোয়ারে ভাসছে এখন। বিশ্বজয় করে দেশ পৌঁছেছে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী দল। বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৫টার কিছু আগে এমিরেটস এয়ারলাইন্সের বিমানে তারা হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান। বিশ্বকাপজয়ী যুবাদের আনুষ্ঠানিকভাবে বরণ করে নেবেন বিসিবি সভাপতি ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী।

    বিমানবন্দর থেকে বীর ক্রিকেটারদের ক্রিকেট বোর্ডে নেয়া হবে বিশেষ বাসে। ইয়াং টাইগারদের জন্য সকাল থেকে বিমানবন্দরে অপেক্ষায় রয়েছেন সমর্থকরা। ইতিহাস সৃষ্টিকারীদের নিয়ে মাতামাতি হবে এটাই স্বাভাবিক। হয়েছেও তাই। সকাল থেকেই সাজ সাজ রব ছিলো বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডে। যেন উৎসবের শহর। এ যাত্রায় রং ছড়িয়েছেন সমর্থকরা।

    দেশের ক্রিকেটকে যারা নিয়ে গেছেন গৌরবের শীর্ষে তাদের ছুঁয়ে দেখতে ভক্তদের আকুতি সীমাহীন। সকাল থেকেই তাই লাল সবুজের জার্সিতে বিসিবিতে জড়ো হতে থাকেন সমর্থকরা।

    শুরুতে ওয়াটার স্যালুটের কথা থাকলেও, আপাতত তা হচ্ছে না। বিমানবন্দরে কেক কাটার পর্ব শেষে তারা পাবেন ফুলেল সংবর্ধনা। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান উপস্থিত থেকে শুরু করবেন আনুষ্ঠানিকতা। ছাদ খোলা বাস তাদের নিয়ে যাবে মিরপুরে হোম অফ ক্রিকেটে। ইয়াং টাইগারদের এমন অর্জনে শিগগিরই প্রধানমত্রীর পক্ষ থেকে সংবর্ধনা দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ হাসান রাসেল। চমৎকার এ অর্জন যাদের হাত ধরে এসেছে তাদের ধরে রাখতে সরকারের পক্ষ থেকেও উদ্যোগ নেয়া হবে বলেও জানিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী।

    এদিকে, গত রোববার অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ ক্রিকেটে ভারতকে হারিয়ে শিরোপা জিতেছে বাংলাদেশ। এর মধ্য দিয়ে প্রথমবারের মতো বৈশ্বিক কোনো শিরোপা নিজেদের করে তুলে নিল বাংলাদেশের যুবারা।

    ওয়াটার স্যালুট কী? বিশ্বের সব বিমানবন্দরেই বিশেষ কারণে ওয়াটার স্যালুট দেয়া হয়। এদের বেশিরভাগই আনন্দদায়ক কারণে। সেগুলো হচ্ছে নতুন কোনো এয়ারলাইন্স বিমানবন্দরে এলে, বিমানের ক্যাপ্টেন বা সংশ্লিষ্ট কোনো মর্যাদাপূর্ণ ব্যক্তি অবসর গ্রহণ করলে, বিমানবন্দরে কোনো বিমান বা এয়ারলাইন্সের শেষ ফ্লাইট হলে, বর্ষবরণ বা যেকোনো উৎসব উদযাপনে, জীবিত বা মৃত কোনো বিশেষ ব্যক্তিকে বরণ করে নিতে। ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে বাংলাদেশের নাম তোলা বীরদের ‘রাষ্ট্রের বিশেষ ব্যক্তি’ ধরেই বরণ করে নেয়া হবে।

    বিভিন্ন ফুটবল দলকেও সাফল্য অর্জন শেষে দেশে ফেরার পর এমন অভ্যর্থনা দিতে দেখা যায়। ২০১৮ বিশ্বকাপ জয়ী ফ্রান্স ফুটবল দল, ২০১৬ সালে ইউরোপিয়ন চ্যাম্পিয়ন হওয়া পর্তুগালও দেশে ফিরে পেয়েছে ওয়াটার স্যালুট। এছাড়া রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হওয়ার পর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিমানটিকেও ওয়াটার স্যালুট দেয়া হয়েছিল।

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    ২৬ জুলাই ২০১৯

    আর্কাইভ

    সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১