• শিরোনাম

    সীমান্ত বিরোধ, চোরাচালান নিয়ে আলোচনা হতে পারে

    সেপ্টেম্বরে ঢাকায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে বিজিবি-বিএসএফের বৈঠক

    ডেস্ক | বুধবার, ২৬ আগস্ট ২০২০ | পড়া হয়েছে 114 বার

    সেপ্টেম্বরে ঢাকায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে বিজিবি-বিএসএফের বৈঠক

    আগামী মাসে ঢাকায় ভারত ও বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর মধ্যে ডিরেক্টর জেনারেল (ডিজি) স্তরে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক হতে চলেছে।আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর থেকে ১৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অনুষ্ঠিতব্য বৈঠকে সীমান্ত এলাকার অপরাধ ও নিরাপত্তা সংক্রান্ত চ্যালেঞ্জগুলি নিয়ে আলোচনা হবে বলে জানা গেছে। মঙ্গলবার সরকারি সূত্রে একথা জানানো হল।

    সুত্র মতে, বিএসএফ কর্মীদের উপর হামলার ঘটনা ঘটছে। দুই দেশের সীমান্ত এলাকার অপরাধীরাই হামলা চালাচ্ছে। এই বিষয়টিও আলোচনায় উঠতে চলেছে। কথা হবে আরও একঝাঁক ইস্যুতে। ভারতীয় জাল নোটের চোরা চালান, গোরু ও মানব পাচার, অনুপ্রবেশ সহ বিভিন্ন ইস্যু উঠবে বৈঠকে। পাশাপাশি বাংলাদেশের মাটি থেকে ভারতীয় বিচ্ছিন্নতাবাদী গোষ্ঠীগুলির কাজকর্ম প্রতিহত করতে সুনির্দিষ্ট পদক্ষেপ নিয়ে আলোচনা হবে। শুধু বাংলাদেশি নয়, অন্য দেশের নাগরিকরাও সীমান্ত দিয়ে বেআইনিভাবে ভারতে ঢুকছে। বিজিবির সঙ্গে বৈঠকে এই ইস্যুটিও তোলা হবে।

    ভারত ও বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ ও বিজিবির মধ্যে এই বৈঠক হবে ১৩ থেকে ১৮ সেপ্টেম্বর ঢাকার পিলখানাতে। ভারতীয় বাহিনীর নেতৃত্ব দেবেন বিএসএফের নবনিযুক্ত ডিজি রাকেশ আস্থানা।

    ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয় সূত্রে জানা যায়, ভারতীয় দলটিতে ন্যারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর (এনসিবি) প্রতিনিধিও থাকবেন।

    বাংলাদেশি দলটির নেতৃত্বে থাকবেন বিজিবির ডিজি মেজর জেনারেল মহম্মদ সফিনুল ইসলাম।

    সর্বশেষ দুই বাহিনীর মধ্যে বৈঠক হয়েছিল গত ডিসেম্বর মাসে দিল্লিতে। দুই দেশের মধ্যে ৪ হাজার ৯৬ কিলোমিটার দীর্ঘ সীমান্ত রয়েছে। সেপ্টেম্বর মাসের বৈঠকে সীমান্ত সংক্রান্ত বহু গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে কথা হবে। পাশাপাশি একটি নতুন প্রোটোকলও তৈরি হবে।

    ভারতের তরফে জয়েন্ট বর্ডার সিকিউরিটি ম্যানেজমেন্ট, সীমান্ত পারের অপরাধ মোকাবিলা ও অরক্ষিত এলাকাগুলিতে কাঁটাতার দেওয়ার মতো ইস্যুগুলি তোলা হতে পারে। সীমান্ত এলাকায় বেআইনি পারাপার ও অপরাধীদের মোকাবিলায় দু’দেশের মধ্যে সহযোগিতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে নয়া নীতি তৈরি হতে পারে এই বৈঠকে।

    উল্লেখ্য, চলতি মাসেই ঢাকা গিয়ে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন পররাষ্ট্র সচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলা। পরের দিন তাঁর কথা হয় বাংলাদেশের বিদেশ সচিব মাসুদ বিন মোমেনের সঙ্গেও।

    আগামী মাসে দুই দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর শীর্ষ স্তরে গুরুত্বপূর্ণ এই বৈঠক হতে চলেছে। দুই দেশের বাহিনীর মধ্যে ডিজি স্তরের এই ধরনের বৈঠক শুরু হয় ১৯৭৫ সালে। ১৯৯৩ সাল থেকে তা বছরে দু’বার করে হয়ে আসছে। একবার দিল্লিতে, পরের বার ঢাকায়।

    বাংলাদেশ সময়: ৩:০৯ অপরাহ্ণ | বুধবার, ২৬ আগস্ট ২০২০

    eurobarta24.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ